skip to Main Content

মেহেরুন

মেহেরুন

'মেহেরুন' মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস এবং চেতনাভিত্তিক একটি উপন্যাস। ইতিহাস ঘটনার বিবরণ, আর চেতনা তার পেছনের দর্শন। উপন্যাসের সময়কাল মুক্তিযুদ্ধের বাংলাদেশ, ২০০১ এর নির্বাচন এবং এর পরবর্তী বিভিন্ন ঘটনাবলী।

উপন্যাসটি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে আসা দু'জনকে ঘিরে আবর্তিত হলেও ঘটনাক্রমে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসের বহুমাত্রিকতা এখানে প্রানবন্ত হয়ে উঠেছে। বাঙলা বিভাগের ছাত্র কবি আবির খন্দকার মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসের খোঁজে বহু মানুষের সাথে কথা বলে, বহু জায়গায় ঘুরাঘুরি করে। বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে আসার পরে তার চেতনায় কবিতার জন্ম হতো একটা বট গাছকে কেন্দ্র করে, যে বটগাছে ঝুলিয়ে ১৯৭১ সালে শত শত বাঙালিকে হত্যা করে পাকিস্তান মিলিটারি। অর্থনীতির ছাত্রী মেহেরুন কেবল যে আবীরের সাথে রোমান্টিক সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে তা না, একইসাথে কবিতার জন্মের সেই চেতনার সাথেও জড়িয়ে পড়ে।
একটু পড়ে দেখতে এখানে ক্লিক করুন:
Order Now!
About the Book
কোনো নির্দিষ্ট সময়কেন্দ্রিক না, তবে বছরের নানা সময়ে সেই বটগাছকে কেন্দ্র করে আশেপাসের প্রকৃতি ব্যস্ত হয়ে পড়ে, আর তাতে যুক্ত থাকে মেঘ এবং সাদা বক, তখন সেই সাদা বকের পাখার ডানার চাকুতে মেঘগুলো কাটা পড়ে, তখন আকাশজুড়ে বর্ণমালা দেখা যায়, তখন বটের পাতার শিরায় শিরায় সেই বর্ণমালা থেকে জন্ম নেয় কবিতা, আর তা সংগ্রহ করে কবি আবির খন্দকার। বহুবছর আগে এভাবেই কবিতা সংগ্রহ করতো গণিতের অধ্যাপক মুজিবুর রহমান (যিনি পরে দেবদাস নাম ধারণ করেন এবং এক সময় নিখোঁজ হয়ে যান), সেই খবর পাকিস্তান মিলিটারির ব্রিগেডিয়ার আবরারের কাছে গেলে অট্টহাসিতে ফেটে গিয়ে সেই অধ্যাপককে ধরে আনার হুকুম দেয় এবং নির্যাতন করে ছেড়ে দেয় এই ভেবে যে, এটা তো একটা বদ্ধ উন্মাদ। যাহোক, বহুবছর পরে সেই একই বটগাছ থেকে কবিতা ঝরে, আর আবির সেই কবিতাগুলোকে ডায়েরির পাতায় লিখে রাখে। ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে যখন সে হলে ওঠার সুযোগ পায়, তখন নিজের অজান্তে আবিরের কবিতার সেই ডায়েরিটা এক ফেরিওয়ালার কাছে বিক্রি হয়ে যায়, যার একটি কবিতা ঝালমুড়ির ঠোঙা হয়ে গল্পের আরেক প্রধান চরিত্র মেহেরুনের হাতে আসে। তারপর অনেকদিন সেই ডায়েরির কোনো খোঁজ থাকে না। ২০০১ সালের অক্টোবরে যখন বিএনপি-জামাত ক্ষমতায় আসে, তখন সেই ডায়েরিটি উদ্ধার হয় তাপসী রাবেয়া হলের কৃষ্ণাদির কক্ষ থেকে, তার কক্ষে আগুন ধরিয়ে দেয়া হলেও অনেক বইয়ের মতো সেটিও অরক্ষিত থাকে। মেহেরুন যখন সেই ডায়েরিটি পায়, তখন আবির নিখোঁজ।
Details
Author:
Genre: ইতিহাস-আশ্রয়ী উপন্যাস
Tag: Recommended Books
Publisher: BB Publications
Publication Year: 2019
Format: Hard Cover
ISBN: 9789843460028
List Price: 15
Endorsements
প্রবাসে কেটে গেল এক যুগেরও বেশি। প্রবাসে অনেক কিছুই মিস করি, তবে সবচে বেশি মিস করি বই। যে বইগুলো পড়তে চাই তা সবসময় হাতে এসে পৌছেনা। এই অপ্রাপ্তির ভেতরে সবচে বড় প্রাপ্তি হল এই যে আমার পরম শ্রদ্ধেয়া শিক্ষক প্রফেসর হোসনেয়ারা হোসেন, যিনি নিজেও ভালো বইয়ের একজন একনিষ্ঠ পাঠক, যেসব বই তাঁর নিজের পড়তে ভাল লাগে তার এক কপি আমার জন্য সযত্নে রেখে দেন। প্রতিবার দেশ থেকে ম্যাডামের কাছ থেকে পাওয়া বই ভর্তি স্যুটকেস নিয়ে আমেরিকা ফিরি। শুধু কি তাই? ম্যাডাম প্রায়ই ডাকযোগে আমাকে বই পাঠিয়ে থাকেন তাও আবার ই এম এসের মাধ্যমে। ২০০/৩০০ টাকা মূল্যের বই- অথচ যার পাঠানোর খরচ দেড় থেকে দুই হাজার টাকা। ম্যাডামকে অনেক বারন করেছি, কিন্তু উনি আমাকে বই পড়িয়ে অসামান্য তৃপ্তি পান। সাম্প্রতিক সময়ে ম্যাডাম একটি উপন্যাসের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেছেন। উপন্যাসটির নাম 'মেহেরুন'। এর লেখক লতিফুল কবির নামের একজন তরুণ প্রকৌশলী। লতিফুর কানাডা প্রবাসী এবং এর আগে তাঁর কোন লেখা পড়ার সুযোগ আমার হয়নি। ম্যাডামের মুখে শুনে শুনে বইটি পড়ার ব্যাপক আগ্রহ আমার মনে সৃষ্টি হয়। অক্টোবরের ৬ ক্যালগারি থেকে একটি পার্সেল এসে পৌঁছে- মেহেরুনকে বহন করে। ভেতরে লেখকের কাছ থেকে পাওয়া অসম্ভব সুন্দর একটা চিঠি। এই ই-যুগে হাতে লেখা চিঠি দেখতে কেমন তাই যেন ভুলতে বসেছিলাম। যা হোক- বইটা পড়লাম যেন এক ঘোরের ভেতরে থেকে। এর প্রকাশকাল ২০১৯ হলেও উপন্যাসের সময়কাল মুক্তিযুদ্ধের বাংলাদেশ থেকে ২০০১ এর নির্বাচন এবং এর পরবর্তী বিভিন্ন ঘটনাবলী নিয়ে। আমার জন্য সবচে বিস্ময়কর এবং উদ্দীপক যা তা হল ঘটনার পটভূমিতে আছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় চত্বর। এই চত্বরে আমার জন্ম- বেড়ে ওঠা। এই সময়টা দেশেই ছিলাম, ঘটনায় বর্ণিত জায়গাগুলো আমার হাতের তালুর মত চেনা। যেহেতু এটি একটি রাজনীতি আশ্রিত উপন্যাস সবগুলো রাজনৈতিক চরিত্রই আমার খুবই পরিচিত। আর যে চরিত্রগুলোকে আবর্তন করে এই উপন্যাস রচিত হয়েছে সেই মানুষগুলোকেও আমার ভীষণ চেনা চেনা মনে হল... কখনো কখনো মনে হচ্ছিল আমি নিজেই যেন উপন্যাসের একটি চরিত্র, আমাকে আবর্তন করে আমারই আশে পাশে ঘটে চলেছে সব কিছু। আর কি সহজ সাবলীল প্রাঞ্জল ভাষা। এমন চমৎকার একটি রাজনীতি আশ্রিত উপন্যাস শেষ কবে পড়েছি মনে করতে পারছিনা। সেই সাথে লেখকের আধুনিক প্রগতিশীল দৃষ্টিভঙ্গী, এক কথায় অনবদ্য। এখন বুঝতে পারছি কেন ম্যাডাম বইটা পড়ার জন্য আমাকে বার বার উদবুদ্ধ করেছিলেন। স্যালুট আপনাকে লতিফুর, অনেক ধন্যবাদ ম্যাডাম আমাকে এমন একটা অসাধারণ উপন্যাস পড়ার সুযোগ করে দেবার জন্য।
– Rahmatullah Imon
About the Author
লতিফুল কবির

লতিফুল কবির একজন কথাসাহিত্যিক। কানাডা প্রবাসী প্রকৌশলী― এই পরিচয় তাকে কথাসাহিত্য থেকে দূরে রাখতে পারেনি। প্রকৌশল জগতের কারিগরী বিষয় তো বটেই স্বাস্থ্য ও সুস্থতার মতো জটিল বিষয়কেও যে গল্পের মাধ্যমে প্রকাশ করা যায়, তার প্রমান তিনি দিয়ে চলেছেন নানা লেখায়। ছোটগল্প ও উপন্যাস মিলে এ পর্যন্ত তাঁর প্রকাশিত গ্রন্থের সংখ্যা ৫টি।

Disclosure of Material Connection: Some of the links in the page above are "affiliate links." This means if you click on the link and purchase the item, I will receive an affiliate commission. I am disclosing this in accordance with the Federal Trade Commission's 16 CFR, Part 255: "Guides Concerning the Use of Endorsements and Testimonials in Advertising."
Select your currency
CAD Canadian dollar